গার্লফ্রেন্ড অর্জনের চেয়ে রক্ষা কার কঠিন। কেন কঠিন? কারণ আপনি কি ভালো? আপনার প্রেমিকার জন্য আপনি কি পারফেক্ট? তার মন বুঝে চলার ক্ষমতা কি আপনার আছে? কি কি ঘাটতি আছে আপনার মধ্যে যার জন্য মেয়েদের সাথে আপনার সম্পর্ক বেশি দূর যাওয়ার বদলে ছিটকে পড়ে। ছেলেদের যে ৬টি ভুলের কারনে মেয়েরা আপনার থেকে মুখ ফিরিয়ে নিবে সেই বিষয়গুলো আজ তুলে ধরছিঃ

১. সহজে বেজায় খুশি:
আপনার সম্পর্কের শুরুতেই যদি প্রেমিকিার খুঁটিনাটি বিষয় নিয়ে অতিরিক্ত ঘাটাঘাটি করেন তবে সে এটি খারাপ দৃষ্টিতে দেখে। প্রেমিকার যে কোন কথা অক্ষরে অক্ষরে মানা বা প্রেমিকিা যা বলে তা করতে সবসময়র প্রস্তুত থাকে তবে সেই ছেলেকে নিয়ে মেয়েটি অবশ্যই দিধায় ভোগে।

২. খুব শিগগিরই বেশি অধিকার খাটানো:
যদি আপনাদের সম্পর্ক খুব অল্প দিনের হয় তবে এমন হতে পারে যে, আপনার প্রেমিকা তার আত্মীয় স্বজন বা বন্ধুদের সাথে ঘুরতে গেছে ফলে আপনার সাথে দেখা করতে একটু দেরি হলো এমতা অবস্থায় আপনি যদি অত্যধিক উতলা হয়ে ওঠেন। তাকে বার বার ফোন, ফোন ম্যাসেজ বা ফেসবুকে ম্যাসেজ নক করেন তবে আপনার প্রেমিকা স্বভাবিকভাবে বির্কত বোধ করবে। কারণ আপনাদের সম্পর্ক বেশি দিনের নয়।

৩. আপনি জানেন বিষয়টি কেমন:
যদি এমনটি হয় আপনার প্রেমিকা তার বান্ধবী বা বন্ধুদের সাথে আড্ডা দিচ্ছে। কিন্তু, এই আড্ডার ২/৩ ঘন্টার ভিতর আপনি আপনার প্রেমিকাকে একবার ফোনে কল বা ম্যাসেজ দিয়ে মনে করলেন না। আপনি বাসায় টিভি বা ফেসবুকে সময় কাটালেন, তাহলে আপনার প্রেমিকা সেটা ভালোভাবে নিবে না। বরং আপনি তাকে বোঝান, আর স্বাধীনতা দিন দেখবেন একসময় সে আপনাকে ছাড়া চলবেই না।

৪. যেকোনো খরচে মানিব্যাগটি বের করে ফেলেন:
রেস্টুরেন্টে একসাথে খেতে গেলেই আপনি দামি খাবার ছাড়া অর্ডার দেন না। খরচের মুহূর্তে নিজের পকেট থেকে মানিব্যাগটা সব সময়ই বের করেন। এ ধরনের স্বভাব বেশ অস্বস্তিকর মেয়েদের জন্য। বরং অন্য কোনো সাধারণ খাবার খেতে যান তার সাথে। আবার সে বিল দিতে চাইলে তাকে দিতে দিন। এতে মেয়েটির ভাল লাগবে। অন্যদিকে, প্রতিবার বিলের ঝক্কি প্রেমিকার ঘাড়ে চাপানোও ভালো নয়। এতে আপনার সাথে মেয়েটি কোনো ভবিষ্যৎ দেখতে পাবে না।

৫. অতীত প্রেম নিয়ে টানাটানি:
বর্তমান সময়ে সবারই এক-দু’বার প্রেম হয়। এতে করে আপনারও সাবেক প্রেম থাকতে পারে এবং সে বিষয়টি আপনার নতুন প্রেমিকা জানে। তবে ভুলেও তার সাথে সাবেক প্রেমিকার সমালেচনা করবেন না। কারণ এত আপনার সম্বন্ধে তার একটা খারাপ ধারণা জন্ম নিতে পারে।

৬. শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনে পীড়াপীড়ি করা:
হুটহাট শারিরীক সম্পর্কে জড়াতে চাইবেন না। এটা আপনার প্রেমিকার কাছে স্বভাবক না ও হতে পারে। মেয়েরা সম্পর্ক অনেকদূর নিয়ে যেতে চায়। সুতরাং সেই সম্পর্ক অনেকদূর যাওয়ার সম্ভাবনা থাকলে সে নিজেই আপনাকে সাড়া দিবে। তাই তাকে সময় দিন, দেখবেন সে নিজেই সব কিছু বুঝবে।

Advertisements